জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের আওতায় আশা কর্মী পদে নিয়োগ

মহিলা প্রার্থীদের জন্য সুখবর। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনে চুক্তি ভিত্তিতে বিভিন্ন পঞ্চায়েত এলাকায় আশা কর্মী পদে নতুন নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা, আবেদন পদ্ধতি সহ বিস্তারিত তথ্য জানতে রইলো এই প্রতিবেদন।

পদের নাম- আশা কর্মী।

মোট শূন্যপদ- ৬৩ টি।

শিক্ষাগত যোগ্যতা- মাধ্যমিক বা সমতুল্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

বয়স- প্রত্যেক প্রার্থীর বয়স ৩০ বছর থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে। এবং তপশিলি জাতি বা উপজাতি প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ২২ বছর থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে। বয়স হিসাব করতে হবে ৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ অনুযায়ী।

যোগ্যতা- প্রত্যেক আবেদনকারী প্রার্থীকে অবশ্যই মহিলা হতে হবে। কেবল বিবাহিতা/ বিধবা/ আইনগতভাবে বিবাহ বিচ্ছিন্ন মহিলারাই আবেদনের যোগ্য। প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। এছাড়াও প্রার্থীকে গ্রেড-১ এবং গ্রেড-২ স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্য হয়ে হয়ে থাকতে হবে।

আবেদন পদ্ধতি- আবেদনে ইচ্ছুক প্রার্থীরা অফলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন। নিচের দেওয়া লিংকে ক্লিক করে আবেদনপত্র ডাউনলোড করে সমস্ত প্রয়োজনীয় নথি যোগ করে। নিজ নিজ ব্লক অফিসে আবেদনপত্র জমা করতে হবে। এবং মুখ বন্ধ খামের উপর বড় হাতে Application For The Post Of Asha লিখতে হবে .

আবেদন পত্র পাঠানোর ঠিকানা- To the Member Secretary, Asha Selection Committee, Office of the Development Officer, Dist- Uttar Dinajpur, West Bengal.

আবেদনপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ- ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ বিকাল ৪ টার মধ্যে আবেদনপত্র জমা করতে হবে।

নিয়োগের স্থান- উত্তর দিনাজপুর জেলার ব্লকে ৫ টি ব্লকে নিয়োগ করা হবে। চোপরা ব্লক- ৮ টি, ইসলামপুর ব্লক- ১১ টি, গোয়াল পক্ষীর ১ নং ব্লক- ১৫ টি, গোয়াল পক্ষীর ২ নং ব্লক- ১৩ টি ও করণদিঘি ব্লক- ১৬ টি।

নিয়োগ পদ্ধতি- মাধ্যমিক পাশ শিক্ষাগত যোগ্যতার নাম্বারের শতাংশের ভিত্তিতে ও ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে।

প্রয়োজনীয় নথি-
১) জন্মতারিখের শংসাপত্র।
২) মাধ্যমিকের এডমিট কার্ড।
৩) স্থায়ী বাসিন্দার প্রমাণপত্র।
৪) জাতিগত প্রমাণপত্র।
৫) স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যের প্রমাণপত্র।
৬) দু কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।